মাশরাফি না সাকিব কার হাতে শিরোপা

img

ঢাকা: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরের ফাইনালে আজ মুখোমুখি হচ্ছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস ও মাশরাফি বিন মর্তুজার রংপুর রাইডার্স। বৃষ্টিতে দ্বিতীয় কোয়ালিফাইয়ার প্রথম দিন ভেসে গেলেও সোমবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৩৬ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠে মাশরাফির রংপুর। প্রথম কোয়ালিফায়ারে কুমিল্লাকে হারিয়ে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করে সাকিবের ঢাকা ডায়নামাইটস।
বিপিএলের গত চার আসরের টানা তিনবারই শিরোপা হাতে তুলেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এর মধ্যে দুইবার ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে। আরেকবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এর হয়ে। একই সঙ্গে এবার নিয়ে পাঁচ আসরের মধ্যে চারবারই ফাইনালে খেলছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।
তবে সাকিব আল হাসানও কম যান না। তিনিও এবার নিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিপিএলের ফাইনাল খেলছেন। গতবার তার হাতেই উঠেছিল বিপিএলের শিরোপা। ফলে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নও বাংলাদেশের নতুন টেস্ট ক্যাপ্টেন। সাকিবের জন্য বাড়তি অনুপ্রেরণা হতে পারে গত আসরের ফাইনাল। এর আগে একবার বিপিএলের ফাইনালে সতীর্থ ছিলেন সাকিব এবং মাশরাফি। এবারই প্রথম শিরোপা লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছেন দেশের দুই সেরা ক্রিকেটার।
শুরু থেকে রংপুরের জন্য টুর্নামেন্টটা খুব একটা ভালো না হলেও, শেষ চারে এসেই নিজেদের মেলে ধরতে শুরু করে দলটি। দুই হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল এবং ব্রেন্ডন ম্যাককালামও ছন্দে ফিরেছেন শেষ চারে এসে। এই দু'জনের অসাধারণ ব্যাটিং নৈপুণ্যে প্রথমবারের মতো বিপিএলের ফাইনালে উঠেছে রংপুর রাইডার্স। রংপুর রাইডার্সের প্রথমবারের মতো ফাইনালে যাওয়ার প্রধান কৃতিত্ব অবশ্যই অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার। অসাধারণ নেতৃত্ব দিয়ে খাদের কিনারা থেকে দলটিকে ফাইনালে তুলে আনেন তিনি।
অন্যদিকে সদ্যই টেস্ট অধিনায়কত্ব পাওয়া সাকিব আল হাসান পুরো আসর জুড়েই খেলেছেন দুর্দান্ত। উইকেট শিকারে তিনি সবার ওপরে। তার ওপর পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে ভালো করেছে তার দল। গতবারেরও চ্যাম্পিয়নও তারা। ফলে শিরোপা ধরে রাখার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী সাকিবের ঢাকা।



-->

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

জব